গায়ের চামড়ার রং কারো একটু সাদা, কারো হয়ত ততটা সাদা নয়। কিন্তু এই পৃথিবীতে কোন মানুষই অসুন্দর নয়। তবুও প্রকৃতি রাজ্যের নানা রকম ধূলাবালি-ময়লা এবং শুষ্ক কিংবা তৈলাক্ত ত্বকের কারণে আমাদের ত্বক হয়ে যায় অসুন্দর। আর নিজের ত্বককে সুন্দর রাখতে যুগ যুগ ধরেই মানুষ শরণাপন্ন হয়েছে নানা রকম ভেষজ কিংবা ক্যামিকেল উপাদান এর প্রতি।

সময়টা ২০০৭ সাল। যাত্রা শুরু হয় “রঙন হারবাল” নামক এক প্রতিষ্ঠানের। জন্মলগ্ন থেকেই যার কিনা সম্পূর্ণ পেশাদারিত্বের সাথে কাজ করে যাচ্ছে, আর যা অবশ্যই প্রচলিত ব্যবসায়ীক মনোভাবের বাহিরে। প্রতিটি মানুষের সুস্থ ত্বক ও সুন্দর চুল আমাদের আনন্দ দেয়। আমরা চাই প্রতিটি মানুষ বেঁচে থাকুক সুস্থ ত্বক ও সুন্দর চুলের মাধ্যমে। আর তাইত “রঙন হারবাল” আপনাদের জন্য কাজ করে যাচ্ছে নিয়মিত এবং নিরলস ভাবে।

 

আমরা যেভাবে কাজ করি:

সুদূর স্পেনের অলিভ অয়েল কিংবা দক্ষিণ আমেরিকার রক্ত চন্দন। দেশে কিংবা দেশের বাহিরে, যেখানেই যে পণ্যটির কাচামাল ভালো পাওয়া যায়, আমরা হোল-সেলারদের নিকট থেকে তা প্রথমে সরাসরি সংগ্রহ করি। পরবর্তীতে রাজধানী ঢাকার ভাটারায় অবস্থিত, আমাদের নিজস্ব ফ্যাক্টিরিতে, নিজস্ব মেশিন ব্যবহার করে পণ্যটি গুড়া করে আপনাদের জন্য প্রক্রিয়াজাত করি। এবং আমরা আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই যে, এই প্রক্রিয়ার মাঝে মূল উপাদান ব্যতীত অন্য কোন উপাদান এবং ভেজাল কোনকিছু মিশ্রিত হয় না।

গায়ের চামড়ার রং কারো একটু সাদা, কারো হয়ত ততটা সাদা নয়। কিন্তু এই পৃথিবীতে কোন মানুষই অসুন্দর নয়। তবুও প্রকৃতি রাজ্যের নানা রকম ধূলাবালি-ময়লা এবং শুষ্ক কিংবা তৈলাক্ত ত্বকের কারণে আমাদের ত্বক হয়ে যায় অসুন্দর। আর নিজের ত্বককে সুন্দর রাখতে যুগ যুগ ধরেই মানুষ শরণাপন্ন হয়েছে নানা রকম ভেষজ কিংবা ক্যামিকেল উপাদান এর প্রতি। সময়টা ২০০৭ সাল। যাত্রা শুরু হয় “রঙন হারবাল” নামক এক প্রতিষ্ঠানের। জন্মলগ্ন থেকেই যার কিনা সম্পূর্ণ পেশাদারিত্বের সাথে কাজ করে যাচ্ছে, আর যা অবশ্যই প্রচলিত ব্যবসায়ীক মনোভাবের বাহিরে। প্রতিটি মানুষের সুস্থ ত্বক ও সুন্দর চুল আমাদের আনন্দ দেয়। আমরা চাই প্রতিটি মানুষ বেঁচে থাকুক সুস্থ ত্বক ও সুন্দর চুলের মাধ্যমে। আর তাইত “রঙন হারবাল” আপনাদের জন্য কাজ করে যাচ্ছে নিয়মিত এবং নিরলস ভাবে।

আমরা যেভাবে কাজ করি:

সুদূর স্পেনের অলিভ অয়েল কিংবা দক্ষিণ আমেরিকার রক্ত চন্দন। দেশে কিংবা দেশের বাহিরে, যেখানেই যে পণ্যটির কাচামাল ভালো পাওয়া যায়, আমরা হোল-সেলারদের নিকট থেকে তা প্রথমে সরাসরি সংগ্রহ করি। পরবর্তীতে রাজধানী ঢাকার ভাটারায় অবস্থিত, আমাদের নিজস্ব ফ্যাক্টিরিতে, নিজস্ব মেশিন ব্যবহার করে পণ্যটি গুড়া করে আপনাদের জন্য প্রক্রিয়াজাত করি। এবং আমরা আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই যে, এই প্রক্রিয়ার মাঝে মূল উপাদান ব্যতীত অন্য কোন উপাদান এবং ভেজাল কোনকিছু মিশ্রিত হয় না।